Bengoli English Arabic

মাও. মোস্তফা আজাদ

প্রখ্যাত মুফাসসিরে কুরআন বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ আল্লামা মোস্তফা আজাদ সাহেব দা. বা.-এর সংক্ষিপ্ত জীবনী
আগমন-প্রস্থানের এক লিলাভূমি এ জগৎ সংসার। সূচনা লগ্ন থেকে পৃথিবীতে কত বনী আদমের আগমন ও প্রস্থান হয়েছে, তার হিসেব কেউ কোন দিন রাখেনি। তবে হ্যাঁ কিছু মানুষ এর ব্যতিক্রম, যাদের আগমন প্রস্থান, জাতি লিখে রাখে স্বর্ণাক্ষরে| প্রশ্ন জাগে তারা কারা, যারা বাতিলের রক্ত চক্ষু, শয়তানিয়্যাতের উদ্ধত অহংকার, ক্ষমতাসীনদের নির্যাতন, কুচক্রিদের প্রলোভন, জাগতিক ভোগ বিলাসের মোহে আপন কর্তব্য থেকে সামান্যতম বিচ্যুত হননি। তারাই সেই ইতিহাসের স্বর্ণালী মানব সেই স্বর্ণালী কাফেলের অন্যতম অনুজ সহযাত্রি আল্লামা মোস্তফা আজাদ দামাত বারকাতুহুম।
জন্ম
প্রখ্যাত আলেমেদ্বীন আল্লামা মোস্তফা আজাদ দা. বা. ১৯৪৯ খৃষ্টাব্দে ১০ মে গোপালগঞ্জ জেলার সাধু হাটি গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন। পিতার নাম মরহুম বাদশা মিয়া।
শিক্ষা জীবন
পিতার চাকুরীর সুবাদে সিলেটে অবস্থান এবং সিলেট আলিয়া মাদরাসা থেকে প্রাথমিক শিক্ষা লাভ করেন। ঢাকার লালবাগ মাদরাসা ও গোপালগঞ্জের গওহরডাঙ্গা দারুল উলূম খাদেমুল ইসলাম মাদরাসা থেকে দাওরায়ে হাদীস সমাপ্ত করেন। পরবর্তীতে গোপালগঞ্জ রামদিয়া কলেজ থেকে গ্র্যাজুয়েশন লাভ করেন। সর্বশেষ তাফসীর শাস্ত্রের উপর উচ্চতর ডিগ্রী লাভ করেন।
কর্ম জীবনের সূচনা
পলসী আলিয়া মাদরাসার অধ্যক্ষ্যের দায়িত্ব পালনের মধ্য দিয়ে তার কর্ম জীবনের সূচনা। পরবর্তীতে ১৯৭৯ সালে আরজাবাদ মাদরাসায় শিক্ষক হিসেবে যোগদান করেন। ১৯৯৬ সালে মুজাহিদে মিল্লাত আল্লামা শামছুদ্দীন কাসেমী রহ.-এর ইন্তেকালের পর তাঁর অন্তিম ইচ্ছানুযায়ী তাঁরই হাতে গড়া হযরত মাওলানা মোস্তফা আজাদ দা. বা.কে মজলিসে শুরা প্রিন্সিপালের গুরু দায়িত্ব প্রদান করেন। তিনি অদ্যাবধি সুনামের সাথে এই দায়িত্ব আনজাম দিয়ে যাচ্ছেন।
রাজনৈতিক জীবন
আল্লামা মোস্তফা আজাদ দা. বা. সর্বদাই একজন সচেতন রাজনীতিবীদ হিসেবে সুপরিচিত। তিনি দেশ, জাতি ও ইসলামের দুর্দিনে সম্মুখ কাতারে কাণ্ডারির ভূমিকা পালন করে থাকেন। অকুতোভয় আপসহীন সংগ্রামী এ আলেমেদ্বীন কাদিয়ানী বিরোধী আন্দোলন, কুরআন অবমাননা প্রতিরোধ আন্দোলন, দেশ ব্যাপী বোমা হামলা প্রতিরোধ প্রভৃতি আন্দোলন-সংগ্রামের উত্তাল দিনগুলোতে দুঃসাহসিকতার স্বাক্ষর রেখেছেন। তিনি বর্তমানে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের সহ-সভাপতির পদ অলঙ্কৃত করে আছেন।